Home বানিয়াচং বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র কাজ বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী

বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র কাজ বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী

0
শেয়ার করুনঃ
বানিয়াচং প্রতিনিধি :      নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করায় বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র নতুন ভবনের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে এলাকাবাসী। মূল ভবনের বেইজ নির্মাণকাজে নিমণমানের ইট ও পাথর ব্যবহার করায় গত শনিবার দুপুরে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন তারা। সুত্র জানিয়েছে,৩১ শয্যার উপজেলার একমাত্র স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করে সরকার। উক্ত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অবকাঠামোসহ বিভিন্ন উন্নয়নে বরাদ্দ এসেছে ১১ কোটি টাকা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে টেন্ডারে কাজ পায় ঢাকার ‘‘এস আলী এ্যান্ড সন্স’’ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। 
এলাকাবাসীর অভিযোগ,ভবন নির্মাণকাজে নিমণমানের পাথর ও ইট ব্যবহারসহ আনুষঙ্গিক কাজ করে যাচ্ছে ঠিকাদার। গত রোববার বিকালে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪টি নতুনভবন নির্মাণ করা হবে। ৫তলা ভিত্তির ৩টি ও ৩লা ভিত্তির একটি ভবন। এরমধ্যে ৩টি ভবনের পিলার ও ছাদ ঢালাইয়ের কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। ভবনগুলোর চারপাশের ওয়াল বেস্টনির কাজ বাকি রয়েছে। মূল ভবনের বেইজের কিছু অংশ ফাইলিং ও ইট সলিং করা হয়েছে। জানা যায়,নির্মাণ কাজে অনিয়ম হচ্ছে জেনে গত শনিবার উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও দক্ষিণ-পূর্ব ইউপি কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক এর নেতৃত্বে এলাকার শতাধিক লোক নির্মাণাধীন ভবনের কাছে যান। এ সময় তারা দেখতে পান মূলভবন নির্মাণ ও বেইজে নিমণমানের ইট দিয়ে সলিংয়ের কাজ করছে শ্রমিকরা। ফাইলিংয়ের নিচে বালু দেয়া হচ্ছেনা। এসব নিয়ে কথা বলতে চাইলে কাজের সিডিউল দেখাতে ব্যর্থ হন ঠিকাদারের প্রতিনিধি। ফলে এলাকাবাসীর বাঁধার মুখে উক্ত ভবনের কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হন তিনি।
এ সম্পর্কে এস আলী এ্যান্ড সন্স কোম্পানির সাইট ইঞ্জিনিয়ার অসীম হাওলাদার বলেন,আমরা যার কাছ থেকে ইট কিনেছি তিনি ভুলবশত: এক গাড়ি নিমণমানের ইট দিয়েছেন। তবে যে ইট দিয়ে বেইজের ফাইলিংলে সলিং করা হয়েছে সেগুলো সরিয়ে নেয়া হবে। কাজ পুনরায় চালু করার জন্য এলাকাবাসীর সাথে কথাবার্তা চলছে। নির্মাণকাজে অনিয়মের বিষয়ে টিএইচও মোহাম্মদ মহিউদ্দিন এর সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি জানান,শনিবার দুপুরে দেখেছি কাজের স্থলে এলাকার কিছু লোক জমায়েত হয়েছেন। তবে কাজের অনিয়মের বিষয়ে কথা বলবেন ইঞ্জিনিয়ার। 
এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ এইচইডি’র এ্যাসিস্টেন্ট ইঞ্জিনিয়ার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) শফিকুর রহমান সমকালকে জানান,কাজে কোন অনিয়ম হয়নি। ভালোমানের কাজ হচ্ছে। নিম্নমানের ইট ওপাথর সরিয়ে নেয়ার জন্য ঠিকাদার প্রতিনিধিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) সরেজমিনে এসে এলাকাবাসীকে কাজের সিডিউল দেখাবেন বলে তিনি জানান। তবে নির্মাণকাজে এলাকাবাসীকে ও সাহায্য সহযোগীতা করতে হবে।
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

Load More In বানিয়াচং