Home বানিয়াচং বানিয়াচংয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির হাতে নিরীহ ৩ মহিলা রক্তাক্ত জখম

বানিয়াচংয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতির হাতে নিরীহ ৩ মহিলা রক্তাক্ত জখম

0
শেয়ার করুনঃ
নিজস্ব প্রতিনিধি :     বানিয়াচং উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আশরাফ সোহেল ও তার ভাইদের হামলায় পাশের বাড়ির একই পরিবারের ৩ মহিলাসহ চারজন আহত হয়েছেন। বাড়ির সীমানা বিরোধের জেরে রোববার দুপুরে তাদের ওপর হামলা চালান স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও তার ভাইয়েরা। গুরুতর আহত দুই বোন সাজেদা আক্তার (২০) ও নিলু আক্তারকে (৩০) বানিয়াচং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মা মনোয়ারা বেগম (৬০) ও তার ছেলে ধন মিয়া (২৮) একই হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন।
আহত সাজেদা খাতুন
হাসপাতাল সূত্র বলেছে, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জখমপ্রাপ্ত সাজেদার মাথায় ৯টি ও নিলুর মাথায় ৬টি সেলাই লেগেছে। আহতরা আর্থিকভাবে দুর্বল থাকায় তাদেরকে সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়নি। বানিয়াচং হাসপাতালে রেখেই চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, উপজেলা সদরের বাসিয়াপাড়ার গত ইউপি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধবীকারী আনোয়ার হোসেন ও পাশের বাড়ির ধন মিয়ার মধ্যে বাড়ির সীমানা সংক্রামত্ম বিরোধ চল আসছে দীর্ঘদিন ধরে। সোমবার ওই ভূমির বাঁশ ঝাড় থেকে বাঁশ কাটেন ধনমিয়া। এ সময় প্রতিপক্ষ আনোয়ার বাঁধা দেন। এক পর্যায়ে আনোয়ার ও তার ফুফাত ভাই উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আশরাফ সোহেল,আরিফ বাপ্পী,মহিবুরসহ তাদের বাহিনী প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালায়। এ সময় একই পরিবারের ৩ মহিলাসহ চারজন আহত হন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, হামলা চলাকালে স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি সোহেলের ছোট ভাই ছাত্রলীগ নেতা আরিফ বাপ্পি প্রতিপক্ষ লোকের চোখে-মুখ লক্ষ্য করে বেপরোয়াভাবে বালু ছিটাতে থাকে। স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন। আহতদের পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে প্রায়ই ধনমিয়ার পরিবারের সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হন আনোয়ার হোসেন।
কিছুদিন পূর্বে ধনমিয়ার পিতা মারা গেলে ঝগড়া-ঝাটির পরিমানটা আরও বাড়তে থাকে। সামান্য বিষয় নিয়ে সবসময়ই তাদের সাথে ঝগড়ায় লিপ্ত হন আনোয়ার গং। মারামারির বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য সোহেল ও তার লোকজন বিভিন্ন জায়গায় ধর্ণা দিচ্ছেন। এদিকে আহত নিলু আক্তার জানিয়েছেন বিষয়টি এখন আর আমাদের হাতে নেই। পুরা গোষ্টীর মধ্যে জানাজানি হয়ে গেছে। তবে মামলা দায়েরের প্রস্ত্ততি চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

Load More In বানিয়াচং