Home বানিয়াচং বানিয়াচংয়ে ৩ মহল্লার সৃষ্ট বিরোধ শালিসে নিষ্পত্তি!

বানিয়াচংয়ে ৩ মহল্লার সৃষ্ট বিরোধ শালিসে নিষ্পত্তি!

0
শেয়ার করুনঃ

বানিয়াচং নিউজ ডেস্ক : বানিয়াচংয়ে ৩ মহল্লার ছান্দের (কুতুবখানী,গরীব হোসেন ও আদমখানী) বিরোধ শালিসের মাধ্যমে নিষ্পত্তি হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে শুক্রবার (৬ অক্টোবর) সকাল দশটায় উপজেলা হলরুমে দেশের বিশিষ্ট পঞ্চায়েত ব্যক্তিত্বদের নিয়ে এক শালিস বৈঠক অনুষ্টিত হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ বশির আহমদ। বৈঠকের শুরুতেই উপস্থিত শালিসানরা দুইপক্ষের লোকজনের মধ্যে ৩ জন করে বক্তব্য দেয়ার সুযোগ প্রদান করেন। প্রথমেই দুই মহল্লার সর্দার রিয়াজ উদ্দিন একে একে সর্দার ওয়ারিশ উদ্দিন খানের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলোর বিস্তারিত বর্ণনা করেন। অভিযুক্ত সর্দার ওয়ারিশ উদ্দিন খান তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলো সম্পুর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট বলে বৈঠকে উপস্থাপন করেন। পরে উভয়পক্ষের দীর্ঘ শুনানি শেষে সভাপতি উপস্থিত শালিসানদের মধ্যে ১৯জনকে নিয়ে বোর্ড গঠন করেন। বোর্ডের প্রায় সকলই বর্তমান সর্দার ওয়ারিশ উদ্দিন খানের অপসারণ চেয়ে মতামত দেন। কেউ কেউ ছয় মাস,তিন মাস ও দুই মাসের মধ্যে সর্দার পদ থেকে সরে যাওয়ার জন্য সময় বেঁধে দিয়ে তাদের নিজনিজ বক্তব্য তোলেন ধরেন। শেষে দেড়মাস সময় দিয়ে তাকে সরে যাওয়ার একমতে পৌছেন বোর্ডে আসা ব্যক্তিরা।


দীর্ঘ আলোচনা শেষে সভাপতি শেখ বশির আহমদ উপস্থিত বৈঠকে আসা লোকজনদের সামনে রায় প্রকাশ করেন। রায়ে প্রথমেই সর্দার ওয়ারিশ উদ্দিন খানের সাথে আর্থিক লেনদেনের বিষয়টি আমলে নেয়নি শালিসানরা বলে জানান তিনি। পরে সর্দার বিষয়ে রায়ে বলা হয়,দেড়মাসের মধ্যে উক্ত ছান্দের সব হিসাব-নিকাশ করে অন্য ৪জন সর্দারের কাছে জমা দেয়ার জন্য। এর আগ পর্যন্ত বর্তমান সর্দারই বহাল থাকবেন। পরবর্তীতে তারা বসে এলাকাবাসীর পছন্দ মতো একজন ছান্দ সর্দার নিয়োগ করবেন মর্মে রায়ে বলেন শেখ বশির আহমদ। পরে উভয়পক্ষের মধ্যে যারা বক্তব্য দিয়েছিলেন তাদেরকে একে অপরের সাথে মিলিয়ে দেন শালিসানরা। ছান্দের বিষয়টি দীর্ঘদিন পরে হলেও মিমাংসিত হওয়ায় উভয়পক্ষের লোকজন ও এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি নেমে এসেছে। শালিস বৈঠকে বানিয়াচংয়ের বিভিন্ন মহল্লার ছান্দ সর্দার,সর্দার,মুরুব্বি,জনপ্রতিনিধি,পঞ্চায়েত ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুনঃ

মন্তব্য করুন

Load More In বানিয়াচং